• বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর
ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩টি পদে মোট ১৭জনের মনোনয়নপত্র দাখিল লাঞ্ছিত জীবনগাঁথা ঈদগাঁওতে ডিসি ও এস পি, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্ন করতে প্রশাসন বদ্ধপরিকর উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে ঈদগাঁওতে নতুন পুরাতন প্রার্থীদের দৌঁড় ঝাঁপ ইয়াবা ও দালালীর জাদুতে আলাদীনের চেরাগপ্রাপ্ত কথিত সাংবাদিক নেতা কেতারা কি আইনের উর্ধ্বে? জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আব্দুল হাই ৩১ দিন পর অক্ষত অবস্থায় মুক্ত জাহাজসহ জিম্মি থাকা ২৩ নাবিক জামিন প্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া, ঠেকানো যাচ্ছে না আগ্রাসন পেটে ভাত নেই,”গরিবের আবার কিসের ঈদ” কক্সবাজারে মাদক পতিতার মজুদ,আনন্দ বাড়াতে উড়াল দিচ্ছে ধনীরা কুতুবদিয়ায় পানিতে ডুবে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের নির্বাচনে বাপী-হাবিব-সুজন পরিষদের বিশাল জয়

কক্সবাজারবানী’র সাথে থাকুন
আপডেট : রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১

এম. আর মিঠু: সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের বার্ষিক নির্বাচন শনিবার (৬ মার্চ) উৎসব ও আনন্দ মূখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে বাপী-হাবিব-সুজন পরিষদ বিশাল জয় পেয়েছে। ১৩টি পদের মধ্যে তারা ১২টিতে জয় পেয়েছে।

সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। ১০৪ জন ভোটারের মধ্যে ১০৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।
এই নির্বাচনে দুটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বী করেন। একদিকে বাপী-হাবিব-সুজন পরিষদ ও অপরদিকে ছিলেন রাম-কচি-কাসেম পরিষদ। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদে যমুনা টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার আহসানুর রহমান রাজীব স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বী করেন।

সভাপতি পদে মমতাজ আহমেদ বাপী ৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রামকৃঞ্চ চক্রবর্তী পান ৪৮ ভোট। সহ-সভাপতি পদে হাবিবুর রহমান পান ৫২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুল ওয়াজেদ কচি পান ৫১ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে মোহাম্মদ আলী সুজন ৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবুল কাসেম ৪৮ ভোট, আহসানুর রহমান রাজীব পান ৫ ভোট। যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে রাম-কচি-কাসেম পরিষদের একমাত্র আব্দুল জলিল ৫২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাপী-হাবিব-সুজন পরিষদের ইয়ারব হোসেন পান ৫১ ভোট। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে এম ঈদুজ্জামান ইদ্রিস ৫৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ রবিউল ইসলাম পান ৪১ ভোট, অর্থ সম্পাদক পদে শেখ মাসুদ হোসেন ৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোশাররফ হোসেন পান ৪৬ ভোট। সাহিত্য, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে শহিদুল ইসলাম পান ৫৭ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কৃঞ্চ মোহন ব্যানার্জী পান ৪৩ ভোট, দপ্তর সম্পাদক পদে শেখ ফরিদ আহমেদ ময়না ৫৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইব্রাহিম খলিল পান ৪৭ ভোট।
নির্বাহী সদস্য পদে মকসুমুল হাকিম ৬০ ভোট, এম শাহীন গোলদার ৫৭ ভোট, আব্দুল গফুর সরদার ৫৭ ভোট, মোঃ মাসুদুর জামান সুমন ৫৫ ভোট ও সেলিম রেজা মুকুল ৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

অপরদিকে নির্বাহী সদস্য পদে রাম-কচি-কাসেম পরিষদের মোঃ আব্দুস সামাদ ৪৬ ভোট, এ্যাড. খায়রুল বদিউজ্জামান ৪৪ ভোট, গোলাম সরোয়ার ৪৬ ভোট, ফারুক রহমান ৪৪ ভোট ও সৈয়দ রফিকুল ইসলাম শাওন ৪৩ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।
ভোট গ্রহন ও গণনা শেষে আদালত কর্তৃক গঠিত নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে এ ফলাফল ঘোষনা করেন।
নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কশিনারের দায়িত্ব পালন করেছেন জেলা নির্বাচন অফিসার নাজমুল কবির। তার সহযোগী ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার শেখ শরিফুল ইসলাম ও অফিস সহকারী রাসেল রানা।


আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন