• মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০১:২৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর
জনপ্রিয় আলেম ও ইসলামী বক্তা মাওলানা লুৎফুর আর নেই :সর্বত্রে  শোকের ছায়া ঈদগাঁওতে মাওলানা আব্বাসের জানাজায় মুসল্লির ঢল বাইতুল ইজ্জত জামে মসজিদের বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত  বর্নাঢ্য আয়োজনে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন সমিতির বার্ষিক মিলন মেলা ও পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন  লামায় মানবজমিন-এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ঈদগাঁওর সুপারি গলির আশপাশ ময়লা আবর্জনায় ভরপুর : ধ্বংস হচ্ছে পরিবেশ  উখিয়ায় আলোচিত সৈয়দ করিম হত্যাকন্ডের আসামী  সালামত উল্লাহ গ্রেফতার : রক্তাক্ত ছুরি ও নিহতের পরিহিত জামা উদ্ধার পুলিশ পদক পেলেন কক্সবাজার পুলিশ সুপার মাহফুজুল ইসলাম। পুলিশ সপ্তাহ ২০২৪’ উপলক্ষে পদক পেলেন র‌্যাব-১৫ এর সিইও সহ ৩ কর্মকর্তা টেকনাফ থানার ওসি ওসমান গনির নেতৃত্বে পুলিশের অভিযানে দুইটি অস্ত্র উদ্ধার।

কক্সবাজারে ২৬ এমপি প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারাচ্ছেন ১৯ প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
আপডেট : মঙ্গলবার, ৯ জানুয়ারি, ২০২৪


নিজস্ব প্রতিবেদক :


দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার জেলার ৪টি সংসদীয় আসনে ২৬ জন সংসদ সদস্য প্রার্থী হয়েছিলেন। এর মধ্যে জাতীয় পার্টির ৩ জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ৩ জন, তৃণমূল বিএনপির ১ জন, বাংলাদেশ কল্যান পার্টির ১ জনসহ ১৯ জনই জামানত হারাচ্ছেন।

রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ঘোষিত প্রাথমিক বেসরকারি ফলাফল বিশ্লেষণ করে এ তথ্য পাওয়া গেছে।নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী, নির্বাচনে কোনো আসনে প্রদত্ত ভোটের ৮ ভাগের ১ ভাগ ভোট কোনো প্রার্থী যদি না পান,তাহলে তাঁর জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়। সংসদ নির্বাচনে

প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য প্রত্যেক প্রার্থীকে জামানত হিসেবে ২০হাজার টাকা জমা দিতে হয়।

রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে প্রার্থী ছিলেন ৭ জন, এর মধ্যে ৫ জনই জামানত হারাচ্ছেন। এ আসনে ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৮৬ হাজার ২৫২। ১৫৮ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ১ লাখ ৪০ হাজার ৬১৩টি। এর ৮ ভাগের ১ ভাগ হচ্ছে ১৭ হাজার ৫৭৬, যা পাননি ৫ প্রার্থী।

এ আসনে বাংলাদেশ কল্যান পার্টির প্রার্থী অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল সৈয়দ মো: ইব্রাহিম ৮১ হাজার ৯৫৫ ভোট পেয়ে নর্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী জাফর আলম পেয়েছেন ৫২ হাজার ৮৯৬ ভোট। এ আসনে জামানত হারাচ্ছেন ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী আবু মোহাম্মদ বশিরুল আলম (প্রাপ্ত ভোট ৫৩৭), জাতীয় পার্টির হোসনে আরা (প্রাপ্ত ভোট ৭৭৩), বাংলাদেশ ইসলামিক ফ্রন্টের মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন (প্রাপ্ত ভোট ৬৯১), স্বতন্ত্র প্রার্থী (জাফর আলমের ছেলে) তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী তুহিন (প্রাপ্ত ভোট ২৪৪), স্বতন্ত্র প্রার্থী কামর উদ্দীন (প্রাপ্ত ভোট ১৮০)।

কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনে প্রার্থী ছিলেন ৬ জন, এর মধ্যে ৪ জনই জামানত হারাচ্ছেন। এ আসনে ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৪৮ হাজার ১২৭। ১১৮ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৫৬৮টি। এর ৮ ভাগের ১ ভাগ হচ্ছে ১৬ হাজার ৯৪৬, যা পাননি ৪ প্রার্থী।

সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা খান সম্পাদিত


আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন