• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
লাঞ্ছিত জীবনগাঁথা ঈদগাঁওতে ডিসি ও এস পি, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্ন করতে প্রশাসন বদ্ধপরিকর উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে ঈদগাঁওতে নতুন পুরাতন প্রার্থীদের দৌঁড় ঝাঁপ ইয়াবা ও দালালীর জাদুতে আলাদীনের চেরাগপ্রাপ্ত কথিত সাংবাদিক নেতা কেতারা কি আইনের উর্ধ্বে? জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আব্দুল হাই ৩১ দিন পর অক্ষত অবস্থায় মুক্ত জাহাজসহ জিম্মি থাকা ২৩ নাবিক জামিন প্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া, ঠেকানো যাচ্ছে না আগ্রাসন পেটে ভাত নেই,”গরিবের আবার কিসের ঈদ” কক্সবাজারে মাদক পতিতার মজুদ,আনন্দ বাড়াতে উড়াল দিচ্ছে ধনীরা কুতুবদিয়ায় পানিতে ডুবে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু টেকনাফ অপরাধ নিয়ন্ত্রণে স্থানীয়দের সহায়তা চাইলেন এসপি মাহফুজ

বিএমএসএফ সভাপতি আবু জাফরের ৪৮তম জন্মদিন,নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুলের শুভেচ্ছা

শর্মা বড়ুয়া:
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর, ২০২৩


ইংরেজি ১২ অক্টোবর, ২০২৩ বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আহমেদ আবু জাফরের ৪৮তম জন্মদিন।

১৯৭৫ সালের ১২ অক্টোবর ঝালকাঠি জেলার সদর থানার পোনাবালিয়া ইউনিয়নের সিলারিশ গ্রামে তাঁর জন্ম। সারা বাংলাদেশের নিপীড়িত নির্যাতিত সাংবাদিকদের কণ্ঠস্বর ও ডায়নামিক লিডার সাংবাদিক বন্ধুখ্যাত আহমেদ আবু জাফরের জন্মদিনে দোয়া, ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন অনেকে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের সংগঠক , সহকর্মী ও শুভাকাঙ্খীরা অজস্র শুভকামনা ও প্রীতি জানিয়েছেন তাঁকে।

প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ১৪ দফা দাবির লক্ষ্য অনুযায়ী বাংলাদেশে সাংবাদিকতা করার পরিবেশের প্রসার ও সংবাদ কর্মীদের মানোন্নয়নকল্পে ভূমিকা রাখায় সংশ্লিষ্ট গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় আলোচনায় ছিলেন সবসময়। সংগঠন ও সাংবাদিকদের কল্যাণে কাজ করে নন্দিত হয়েছেন তিনি।

আব্দুল মজিদ জমাদ্দার ও হাজেরা খাতুন দম্পতির সাত মেয়ে ও একমাত্র পুত্র সন্তান আহমেদ আবু জাফর। বিভিন্ন গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকায় প্রতিষ্ঠিত আট ভাই-বোনের মধ্যে তিনি পঞ্চম।

আহমেদ আবু জাফর গ্রামের সিলারিশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাজীবন শুরু করেন। এরপর কে এ খান মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৯৯১ সালে এসএসসি, ঝালকাঠি সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি, বরিশাল বিএম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ব্যাচেলর অফ সোশ্যাল সাইন্সে (বিএসএস) পাস করেন । একই কলেজে মাস্টার্স ও বরিশাল “ল” কলেজে আইন বিভাগে এলএলবিতে ভর্তি হলেও সাংবাদিকতা পেশার প্রবল চাপে প্রাতিষ্ঠানিক পড়ালেখার সমাপ্তি করেন।

ছাত্র জীবনে তিনি মহান স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলক আ স ম আব্দুর রবের জাসদ ছাত্রলীগের ঝালকাঠি জেলা সভাপতি, কেন্দ্রীয় সদস্য এবং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করায় সর্বশেষ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়ে ২০০০ থেকে ২০০২ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ছাত্রত্ব শেষ হলে আহমেদ আবু জাফর রাজনীতি থেকে বিদায় নেন।

এরপর ঝালকাঠি জেলার নলসিটি উপজেলার ভৈরবপাশা ইউনিয়নের উত্তমাবাদ গ্রামের বাসিন্দা বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ ও রাশিদা আফরোজ দম্পতির দ্বিতীয় কন্যা সুমা আহমেদ এর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিবাহিত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। বড় মেয়ে সুস্মিতা আহমেদ জেরিন ও ছেলে আরাফ আহমেদ।

আহমেদ আবু জাফর ছাত্রজীবনে থাকা অবস্থায় সাংবাদিকতায় মনোনিবেশ করেন। সাপ্তাহিক যুবকণ্ঠ পত্রিকায় হাতে খড়ি তাঁর । পরবর্তীতে সাপ্তাহিক অজানা খবর, দৈনিক অজানা বার্তা , দৈনিক ঝালকাঠি বার্তা , বরিশালের স্থানীয় দৈনিক শাহনামা , দৈনিক আমাদের কণ্ঠ , দৈনিক কালবেলা , দৈনিক নবরাজে সাংবাদিকতা করেন। এরপর দৈনিক আধুনিক বাংলায় বার্তা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা অবস্থায় ২০১৩ সালে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম নামে একটি সাংবাদিক সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। সাংবাদিক সংশ্লিষ্ট কর্মকাণ্ডে সফলতার সাথে কার্যক্রম পরিচালনায় গতবছর সংগঠনটি সরকার কর্তৃক নিবন্ধন লাভ করে। বর্তমানে ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যানের পাশাপাশি বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি, সংগঠণের মুখপাত্র মিডিয়া ক্যানভাস ও বাংলা পোর্টাল নামে একটি অনলাইন পত্রিকা সম্পাদনা করছেন তিনি। মূলত: তিনি একজন ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক। বিএমএসএফ’র পাশাপাশি সাংবাদিকদের স্বার্থে সহযোগি সংগঠন হিসেবে সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি, জার্নালিস্ট শেল্টার হোম গঠন করেছেন।

এদিকে প্রিয় নেতার শুভ জন্মদিনে আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা খান।

এসময় তিনি বিএমএসএফ এর বর্তমান সাবেক সকল নেতাকর্মীদের  আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে  জাফর সাহেবের পরিবার পরিজন সহ বিশ্বের সকল পেশাদার সাংবাদিকদের নেক হায়াত কামনার পাশাপাশি দলমত ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সুখে দুঃখে একে অপরের পাশাপাশি থাকার সবিনয় অনুরোধ জানান।


আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন