• রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর
লাঞ্ছিত জীবনগাঁথা ঈদগাঁওতে ডিসি ও এস পি, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্ন করতে প্রশাসন বদ্ধপরিকর উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে ঈদগাঁওতে নতুন পুরাতন প্রার্থীদের দৌঁড় ঝাঁপ ইয়াবা ও দালালীর জাদুতে আলাদীনের চেরাগপ্রাপ্ত কথিত সাংবাদিক নেতা কেতারা কি আইনের উর্ধ্বে? জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আব্দুল হাই ৩১ দিন পর অক্ষত অবস্থায় মুক্ত জাহাজসহ জিম্মি থাকা ২৩ নাবিক জামিন প্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া, ঠেকানো যাচ্ছে না আগ্রাসন পেটে ভাত নেই,”গরিবের আবার কিসের ঈদ” কক্সবাজারে মাদক পতিতার মজুদ,আনন্দ বাড়াতে উড়াল দিচ্ছে ধনীরা কুতুবদিয়ায় পানিতে ডুবে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু টেকনাফ অপরাধ নিয়ন্ত্রণে স্থানীয়দের সহায়তা চাইলেন এসপি মাহফুজ

কক্সবাজারে মাদক ও পতিতা ব্যাবসায়িদের রাম রাজত্ব, ২ কিশোরী সংঘবদ্ধ ধর্ষনের শিকার।

কক্সবাজারবানী ডেস্ক রিপোর্ট :
আপডেট : বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

বানী ডেস্ক রিপোর্ট :


কক্সবাজারের কলাতলীর কটেজ জোনে দুই কিশোরী সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তাদের মধ্যে একজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তবে তার নাম-পরিচয় জানায়নি পুলিশ।

মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে দিনভর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা থাকলেও রাত ৯টার আগে কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম এক ব্যক্তিকে আটকের তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ’পুলিশের অভিযান এখনও চলছে। জড়িতদের শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। দুইজনকে আটক রয়েছে। তার নাম-ঠিকানা পরে জানানো হবে।’

কিশোরীর চিকিৎসক, পুলিশ ও ঘটনাস্থলের আশপাশে থাকা মানুষের তথ্যমতে, কলাতলী এলাকার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের বিপরীতে অবস্থিত রাজন কটেজ নামের প্রতিষ্ঠানে সোমবার রাতে দুই কিশোরী সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন।

কয়েকদিন আগে একটি অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশনের জন্য ঢাকা থেকে তাদের কক্সবাজার শহরে আনা হয়েছিল। যার মাধ্যমে তারা আসেন সেই ব্যক্তি একটি চক্রের হাতে তাদের তুলে দেয়। রাজন কটেজে নিয়ে তাদের ধর্ষণ করে চক্রের সদস্যরা

এদিকে শুধু রাজন কটেজ নয়,হোটেল মোটেল জোনের প্রায় কটেজে কিছু ব্যাবসায়িক দুর্বিত্ত দীর্ঘদিন ধরে ভয়ংকর মাদক ইয়াবা ও জমজমাট পতিতা ব্যাবসা চালিয়ে আসলেও রহস্যজনক কারনে তারা বরাবরের মতই পার পেয়ে যাচ্ছে।

সেখান থেকে অনেকেই মাসুহারা নিচ্ছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে।চক্রটির কারনে কক্সবাজার পর্যটন শিল্পে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হওয়ায় শত-হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করে তারকা মানের হোটেল করা অনেক পবিত্র হোটেল মোটেল রিসোর্ট গেস্ট হাউজ মালিক বিব্রতকর অবস্থায় রয়েছেন।


আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন