• বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩টি পদে মোট ১৭জনের মনোনয়নপত্র দাখিল লাঞ্ছিত জীবনগাঁথা ঈদগাঁওতে ডিসি ও এস পি, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্ন করতে প্রশাসন বদ্ধপরিকর উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে ঈদগাঁওতে নতুন পুরাতন প্রার্থীদের দৌঁড় ঝাঁপ ইয়াবা ও দালালীর জাদুতে আলাদীনের চেরাগপ্রাপ্ত কথিত সাংবাদিক নেতা কেতারা কি আইনের উর্ধ্বে? জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আব্দুল হাই ৩১ দিন পর অক্ষত অবস্থায় মুক্ত জাহাজসহ জিম্মি থাকা ২৩ নাবিক জামিন প্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া, ঠেকানো যাচ্ছে না আগ্রাসন পেটে ভাত নেই,”গরিবের আবার কিসের ঈদ” কক্সবাজারে মাদক পতিতার মজুদ,আনন্দ বাড়াতে উড়াল দিচ্ছে ধনীরা কুতুবদিয়ায় পানিতে ডুবে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু

ঢাকা-চট্রগ্রামে ডিজিটাল উপায়ে ভ্যাট আদায়

কক্সবাজারবানী ডটকম:
আপডেট : সোমবার, ২৮ আগস্ট, ২০২৩


কক্সবাজারবানী ডটকম

মূসক ও সম্পূরক শুল্ক সুষ্ঠুভাবে সংগ্রহের উদ্দেশ্যে ইএফডি/এসডিসি যন্ত্র দেশব্যাপী স্থাপন করবে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড। এই কোম্পানি আগামী পাঁচ বছরে ঢাকা ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে বিনা মূল্যে তিন লাখ ইএফডি (ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস) ও এসডিসি (সেলস ডাটা কন্ট্রোলার) যন্ত্র স্থাপন করবে, এসব যন্ত্রের রক্ষণাবেক্ষণও তারা করবে। এসব যন্ত্র স্বয়ংক্রিয়ভাবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সার্ভারে বিক্রয়ের তথ্য-উপাত্ত পাঠিয়ে দেবে।

এনবিআরের সাধারণ আদেশে বলা হয়েছে, দরপত্রের শর্ত অনুযায়ী নির্বাচিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রশিক্ষণ দেবে জেনেক্স। শুধু ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারাই নন, সংশ্লিষ্ট কমিশনারেটের কর্মকর্তাদেরও প্রশিক্ষণ দেবে জেনেক্স। ইএফডি/এসডিসি স্থাপনের পর এ সংক্রান্ত তথ্য সংশ্লিষ্ট কমিশনারেটে পাঠাবে জেনেক্স। এ ছাড়া সংশ্লিষ্ট কমিশনার প্রতি মাসের পাঁচ তারিখের মধ্যে আগের মাসে যেসব প্রতিষ্ঠানে ইএফডি/এসডিসি স্থাপন করা হয়েছে, তার হালনাগাদ তালিকা

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে পাঠাবে। দেড় দশক ধরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড মূসক সংগ্রহ আধুনিকায়নের চেষ্টা করছে। মূলত ভ্যাট আদায় বাড়ানোর লক্ষ্যে তারা এ কাজ করছে। ২০০৭-০৮ সালে ইলেকট্রনিক ক্যাশ রেজিস্টার (ইসিআর) চালুর চেষ্টা করে এনবিআর, কিন্তু এই উদ্যোগ ব্যবসায়ীদের মধ্যে তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি।

ইসিআর প্রচলনের কয়েক বছর পর এ সংক্রান্ত সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। মূলত প্রয়োগের ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা এবং রাজস্ব কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীদের অবৈধ যোগসাজশের কারণে এই উদ্যোগ সফল হয়নি বলে অভিযোগ। অন্যদিকে ইসিআরগুলো এনবিআরের কেন্দ্রীয় সিস্টেমের সঙ্গে যুক্ত ছিল না। সে কারণে ব্যবসায়ীরা তাদের প্রকৃত লেনদেনের তথ্য প্রকাশ করছেন কি না, তা যাচাই করার উপায় ছিল না।

ইসিআরের ব্যর্থতার পর ২০১৭ সালে ইএফডি বসানোর উদ্যোগ নেয় এনবিআর। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে এই প্রযুক্তি কেনার জন্য দরপত্র আহ্বান করে এনবিআর। ২০১৯ সালে পরীক্ষামূলকভাবে ঢাকা ও চট্টগ্রাম শহরে ১০০ মেশিন বসানো হয়। পরের চার বছরে সব মিলিয়ে ১০ হাজারের মতো মেশিন বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে বসেছে।
এসব মেশিনের দাম ২০-২২ হাজার টাকা। তাই এই বাড়তি খরচের কারণে ব্যবসায়ীরা মেশিন বসাতে আগ্রহ দেখান না। এনবিআর সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে প্রায় তিন লাখ প্রতিষ্ঠান ভ্যাট নিবন্ধন নিয়েছে। সেই অভিজ্ঞতা থেকে গত অর্থবছরের শুরুতে এনবিআরের ভ্যাট বিভাগ নতুন উদ্যোগ নেয়।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে আগামী পাঁচ বছরে তিন লাখ ইএফডি বসানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়, যা বাস্তবায়নে আজ সাধারণ আদেশ দিয়েছে এনবিআর। জেনেক্স বিনা মূল্যে বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও বিপণিবিতানে ইএফডি মেশিন বসাবে, বিনিময়ে প্রতি ১০০ টাকা ভ্যাটে ৫২ পয়সা কমিশন হিসেবে পাবে


আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন