• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
লাঞ্ছিত জীবনগাঁথা ঈদগাঁওতে ডিসি ও এস পি, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্ন করতে প্রশাসন বদ্ধপরিকর উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে ঈদগাঁওতে নতুন পুরাতন প্রার্থীদের দৌঁড় ঝাঁপ ইয়াবা ও দালালীর জাদুতে আলাদীনের চেরাগপ্রাপ্ত কথিত সাংবাদিক নেতা কেতারা কি আইনের উর্ধ্বে? জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আব্দুল হাই ৩১ দিন পর অক্ষত অবস্থায় মুক্ত জাহাজসহ জিম্মি থাকা ২৩ নাবিক জামিন প্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া, ঠেকানো যাচ্ছে না আগ্রাসন পেটে ভাত নেই,”গরিবের আবার কিসের ঈদ” কক্সবাজারে মাদক পতিতার মজুদ,আনন্দ বাড়াতে উড়াল দিচ্ছে ধনীরা কুতুবদিয়ায় পানিতে ডুবে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু টেকনাফ অপরাধ নিয়ন্ত্রণে স্থানীয়দের সহায়তা চাইলেন এসপি মাহফুজ

মালেক মাঝি হত্যাকান্ড, পেকুয়ায় সভাপতিকে মামলায় জড়ানোর প্রতিবাদে সড়কে মানববন্ধন

কক্সবাজারবানী’র সাথে থাকুন
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই, ২০২৩

পেকুয়া প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের পেকুয়ায় আবদুল মালেক প্রকাশ মালেক মাঝি হত্যা মামলায় টৈটং বাজারের সভাপতিসহ কিছু নির্দোষ ব্যক্তিকে ফাঁসানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে টইটং বাজারের ব্যবসায়ীরা।
রবিবার (২৩ শে জুলাই) বিকেল ৫ টার দিকে উপজেলার টইটংয়ের ইউনিয়নের প্রধান বাণিজ্যিক কেন্দ্র টইটং বাজারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

(এবিসি) আঞ্চলিক মহাসড়কে জড়ো হয়ে শত শত ব্যবসায়ীরা মালেক মাঝি হত্যাকান্ডে টইটং বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ আলম প্রকাশ মোহাম্মদ মাঝি ও টইটং ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মনজুর আলমসহ নিরাপরাধ ব্যক্তিদের মামলায় জড়ানোর তীব্র প্রতিবাদ জানান।
এ সময় ব্যানার, ফেস্টুনসহ সড়কে অবস্থানরত ব্যবসায়ীরা জানান, মোহাম্মদ মাঝি ষড়যন্ত্রের শিকার। তাকে হয়রানি করতে একটি স্পর্শকাতর ঘটনা ও মামলায় জড়ানো হয়েছে। আমরা আইন ও বিচারের প্রতি অত্যন্ত শ্রদ্ধাশীল। সে দিনের হত্যাকান্ডের ঘটনা দেশের সংবাদপত্রে উঠে এসেছে। সাংবাদিকরা এ হত্যাকান্ড নিয়ে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করেছে। ওই ঘটনার সাথে মোহাম্মদ মাঝি, মনজুর মেম্বারসহ আরো কিছু নিরাপরাধ মানুষকে জড়ানো হয়েছে। তদন্তপূর্বক নিরাপরাধ ব্যক্তিদের এ হত্যা মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য আমরা প্রশাসন, আইন, বিচার বিভাগ ও রাষ্ট্রপক্ষের নিকট বিনয়ের সহিত আহবান জানাচ্ছি।

এ সময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে টইটং বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক সেলিম উল্লাহ জানান, এ ধরনের ফাঁসানোর ঘটনায় নাগরিকদের অধিকারের চরম আঘাত বলে আমরা মনে করছি। মালেক মাঝি হত্যাকান্ডের দোষীদের বিরুদ্ধে আমরা শাস্তি চাই। তবে নির্দোষ মানুষ যাতে হয়রানি না হয় সে কথা বলার অধিকার আমরা রাখি।

পল্লী চিকিৎসক ফরিদুল আলম বলেন, আমরা এ মামলা নিয়ে চরম স্তম্ভিত হয়েছি। টইটংয়ের বাইরের মানুষকে আসামী করা হয়েছে। একজন প্রবাসীও মালয়েশিয়া থাকা অবস্থায় আসামী। ব্যবসায়ী নেতা ও শিক্ষানুরাগী শোয়াইব বলেন, আমরা টইটংয়ের মানুষ। আসলে হত্যাকান্ডের বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে গেছে। আমরা মনে করি একটি পরিবার ছাড়া আর অন্য কোন মানুষ এ ঘটনার সাথে জড়িত নই বলে টইটংবাসী নিশ্চিত হয়েছে।

এরপরও প্রশাসন নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার আসল রহস্য উদঘাটন করুক আমরা এ প্রত্যাশাটুকু রাখছি।


আরো বিভন্ন নিউজ দেখুন